অনুসন্ধান - অন্বেষন - আবিষ্কার

ঈদে সীতাকুণ্ডে নির্যাতনের শিকার বিএনপি নেতাকর্মীদের পাশে শামীম

0
.

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম বলেছেন, বিগত সময়ে আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে যারা গুম, খুন ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন তাদের পরিবারকে তারেক রহমানের প্রদত্ত্ব ঈদ উপহার বিতরণ করা হচ্ছে। জনগণের দল হিসেবে বিএনপি সবসময় মানুষের পাশে থাকে। আর আওয়ামীলীগ ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকে নির্যাতনকে তাদের প্রধান রাজনৈতিক কর্মসূচি করেছে। একদলীয় শাসন ব্যবস্থা টিকিয়ে রাখতে গুম খুনকে পথের কাঁটা দূর করার প্রধান হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। জনসমর্থনহীন সরকারের টিকে থাকার অবলম্বনই হচ্ছে নির্যাতন। বিএনপির নেতাকর্মীদের উপর নির্যাতনই হচ্ছে একদলীয় দুঃশাসনের নমুনা। তবে প্রতিটি নির্যাতনের তদন্ত ও বিচার একদিন হবেই।

তিনি আজ সোমবার (১ এপ্রিল) বিকেলে সীতাকুণ্ড উপজেলায় নির্যাতনের শিকার ১৩টি পরিবারের মাঝে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ঈদ উপহার প্রদানকালে এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, বাংলাদেশে বিরোধী মতের নেতাকর্মীদের নির্যাতনের ইতিহাস সৃষ্টি করেছে আওয়ামী সরকার। সরকার তাদের দখলদারিত্ব ধরে রাখার জন্য পুরো দেশকে কারাগারে পরিণত করেছে। এই নির্যাতনের ধারাবাহিকতা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত। গণতন্ত্রের কবর রচনার জন্যই গুম খুনের মতো অমানবিক কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার। বিএনপিকে নির্মূল করে দেশে কর্তৃত্ববাদী শাসনকে দীর্ঘস্থায়ী করাই এর মূল লক্ষ্য। এই ধারা বয়ে চলতে চলতে দেশ অরাজকতার ঘন অন্ধকারে ডুবে গেছে। মানুষের স্বাভাবিক জীবন যাপন সম্পূর্ণভাবে বিপর্যস্ত হয়ে গেছে।

এতে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী সালাহউদ্দিন, সীতাকুণ্ড উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য সচিব গাজী মো. সুজাউদ্দীন, বাঁশবাড়িয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি সালামত উল্লাহ, বারৈয়ারঢালা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবু জাফর ভূঁইয়া, মুরাদপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আকবর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সরোয়ার কামাল, আলাউদ্দিন মাসুম, বিএনপি নেতা নুরুন্নবী সালাম, আলাউদ্দিন, জেলা যুবদলের সহ সভাপতি ইসমাইল হোসেন প্রমুখ।